সুফিয়া কামাল হল শাখা ছাত্রলীগ সভাপতি ইফফাত জাহান এশাকে বহিষ্কার

0
400
কোটা সংস্কারের আন্দোলনের অংশ নেওয়ার জন্য এক ছাত্রীকে মারধোরের অভিযোগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বেগম সুফিয়া কামাল হল শাখা ছাত্রলীগ সভাপতি ইফফাত জাহান এশাকে বহিষ্কার করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ । এর আগেই শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে ছাত্রলীগ থেকেও তাকে বহিষ্কার করা হয়। ছাত্রলীগ নেত্রীর এমন কর্মকার্ন্ডে রাতেই হলের সামনে বিক্ষোভ করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীরা।
শাখা ছাত্রলীগ সভাপতি
সুফিয়া হল শাখা ছাত্রলীগ সভাপতি এশা
প্রত্যক্ষদর্শী সুফিয়া কামাল হলের ছাত্রীরা জানায়, সম্প্রতি কোটা সংস্কার আন্দোলনে সারা দেশের ছাত্র-ছাত্রীদের সমর্থনে এক হয়ে শাহবাগে অবরোধ কর্মসূচিতে অংশগ্রহন করে সুফিয়া কামাল হলের ছাত্রীরাও। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করেই হল শাখা ছাত্রলীগ সভাপতি ইফফাত জাহান এশা তিনজন আন্দোলনকারী ছাত্রীদের হলে তার রুমে ডেকে নিয়ে নির্যাতন করে। নির্যাতনের মাত্রা এতটাই ঘৃণ্য ছিল যে তার আঘাতে এক ছাত্রীর পা কেটে যায়।তারপর আহত ছাত্রীদের চিৎকারে হলের অন্যান্য ছাত্রীরা এগিয়ে আসে এবং আহত ছাত্রীকে হাসপাতালে পতাঠানোর ব্যবস্থা করে। এরপর হলের বিভিন্ন ছাত্রীরা মোবাইলের মাধ্যমে আহত ছাত্রীর রক্তাক্ত পা, স্যান্ডেল ও ফ্লোরের বিভিন্ন ছবি ও ভিডিও লাইভ করে তা পরে ফেসবুক ও স্যোশাল মিডিয়াতে শেয়ার করতে থাকে।খবরটি দ্রুত অনলাইনে ভাইরাল হওয়ার ফলে দেশের বিভিন্ন মহল থেকে প্রতিবাদ ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শাহবাগ এলাকায় বিক্ষোভ ফেটে পড়ে শিক্ষার্থীরা। উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে পুরো ঢাকা বিশ্বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে।এই নির্যাতনের প্রতিবাদে হল শাখা ছাত্রলীগ সভাপতির বিরুদ্ধে রাতেই কয়েক হাজার ছাত্র-ছাত্রী হলের ভিতর ও ক্যাম্পাসে মধ্যে বিক্ষোভ শুরু করে।  এক এক করে আবারো জড়ো হতে থাকে বিভিন্ন হলের ছাত্র-ছাত্রীরা । সেই সময় বিক্ষোভকারী শিক্ষার্থীরা দাবি করেন, নির্য়াতনকারী বেগম সুফিয়া কামাল হলের শাখা ছাত্রলীগ সভাপতি ইফফাত জাহান ইশাকে বহিষ্কার করতে হবে।১০ এপ্রিল মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১২টার দিকে এই ঘটনার সুত্রপাত ঘটে।
ছাত্রীরা বিক্ষোভ করলে রাত ১ টার দিকে হলে যান প্রাধ্যক্ষ সাবিকা রেজওয়ানা ও বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর একেএম গোলাম রাব্বানী। এর দেড় ঘন্টা পর প্রক্টর জানান,ইফফাত জাহান এশাকে হল থেকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নিয়েছে হল কর্তৃপক্ষ। ১০ এপ্রিল মঙ্গলবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক মো: আখতারুজ্জামান সাংবাদিকদের বলেন,”এশাকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। বুধবার বহিষ্কার প্রক্রিয়ার আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করা হবে। অন্যদিকে মারধরের ঘটনায় এশাকে ছাত্রলীগ থেকেও বহিষ্কার করা হয়। রাতেই কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ ও সাধারণ সম্পাদক এস.এম. জাকির হোসাইন স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, দলীয় শৃঙ্গলা ভঙ্গের দায়ে নির্বাহী কমিটির সিদ্ধান্তে ইফফাত জাহান এশাকে বহিষ্কার করা হয়েছে।
আমাদের সাথে যুক্ত হতে চাইলৈ : ফেসবুক পেইজ | | ফেসবুক গ্রুপ
উপরোক্ত তথ্য সম্পর্কিত কোন মতামত জানাতে চাইলে কমেন্ট করুন এবং শেয়ার করে অন্যকে জানার সুযোগ করে দিন

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার কমেন্ট লিখুন
আপনার নাম লিখুন