জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষার ফলাফল ও খাতা পুনঃনিরীক্ষণের আবেদন করার নিয়ম

0
755
গতকাল প্রকাশিত হয়েছে জেএসসি ও জেডিসি সমাপনী পরীক্ষার ফলাফল। ৩০ ডিসেম্বর শনিবার সকাল ১০ ঘটিকায়  শিক্ষামন্ত্রী নূরুল ইসলাম নাহিদ এবং প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান, সেই সাথে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ঠ আরোও উর্দ্ধতন কর্মকর্তাগণ গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নিকট একটি অনুষ্ঠানে এই পরীক্ষার ফলাফলের অনুলিপি তুলে দেন।
জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষা
জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষার ফলাফল
তারপর বেলা ১ ঘটিকায় সচিবালয়ের নিজ কার্যলয়ে গণশিক্ষামন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান এবং বেলা ২ ঘটিকায় শিক্ষামন্ত্রী নূরুল ইসলাম নাহিদ সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে ২০১৭ সালের জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষার ফলাফল ঘোষণা করেন। তিনি জানান গত ১ লা নভেম্বর সারা দেশে এক যোগে শুরু হওয়া পরীক্ষা শেষ হয় গত ১৮ নভেম্বর। এ বছর জেএসসি  পরীক্ষায় পরীক্ষার্থী ছিল ২০ লাখ ৯০ হাজার ২৭৭ জন অন্যদিকে জেডিসি পরীক্ষার পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৩ লাখ ৭৮ হাজার ৫০৩ জন। এ বছর জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষার্থীর মোট সংখ্যা ছিল ২৪ লাখ ৬৯ হাজার ।

জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষার ফলাফল ও খাতা পুনঃনিরীক্ষণ

এ বছর জেএসসি পরীক্ষার গড় পাসের হার ৮৩ দশমিক ১০ শতাংশ। অন্যদিকে জেডিসি  পরীক্ষার গড় পাসের হার ৮৬ দশমিক ৮০ শতাংশ।  এবং এ বছর জেএসি পরীক্ষায় জিপিএ ৫ পেয়েছে ১ লাখ ৮৪ হাজার ৩৯৭ জন। এবং জেডিসি পরীক্ষায় জিপিএ ৫ পেয়েছে ৭ হাজার ২৩১ জন। এ বছর জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষায় মোট জিপিএ ৫ পেয়েছে ১ লাখ ৯১ হাজার ৬২৮ পরীক্ষার্থী।সর্ম্পূণ্য ফলাফল পর্যালোচনা করে বোঝা যায় ২০১৭ সালের জেএসসি ও জেএডিসি পরীক্ষার পাসের হার ৮৩ দশমিক ৬৫ শতাংশ যা পূর্বের বছরের তুলনায় ৯ দশমিক ৪১ শতাংশ কম। অপরদিকে গত বছর তুলনায় এবার জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষার জেপিএ ৫ সংখ্যাও কমে গেছে।
এ বছর জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষার ফলাফল পূর্বের তুলনায় আশানুরুপ হয়নি বলেই ধরা যায়। অনেক পরীক্ষার্থীর আঙ্খাকিত ফলাফল পেতেও ব্যর্থ হয়েছে। কিন্তু যে সব পরীক্ষার্থী ভাল পরীক্ষা দিয়েও আশানুরূপ ফলাফলে ব্যর্থ হয়েছেন। তারা পুনরায় ফলাফল পুনঃনিরীক্ষণের জন্য আবেদন করতে পারবেন।  অনেক সময় নম্বরপত্রে ফলাফলে ক্রমে ভুল  বা নম্বর যোগ হতে ভুল এরকম ছোট খাট ভুলের কারণেও ভাল শিক্ষার্থীরা পরীক্ষার ফলাফলে খারাপ রেজাল্ট করে। যদি কোন পরীক্ষার্থী তাদের ফলাফলে সন্দেহ প্রদান করে তাহলে সেই পরীক্ষর্থী বোর্ডের মাধ্যমে খাতা পনঃনিরীক্ষণের জন্য আবেদন করতে পারে।
জেএসসি ফলাফল পুনঃনিরীক্ষণ
জেএসসি ফলাফল পুনঃনিরীক্ষণের আবেদন করার নিয়ম

 জেএসসি পরীক্ষার ফলাফল পুনঃনিরীক্ষণের আবেদন করার নিয়ম

  • প্রথমে একটি টেলিটক অপারেটর সংযোগসহ মোবাইল ফোন প্রয়োজন হবে। যাদের টেলিটক সিম নেই তারা ইচ্ছা করলে অপর কারোও টেলিটক সংযোগ ব্যবহার করতে পারবেন। অথবা ফলাফল পুনঃনিরীক্ষণের জন্য আবেদন করা যায় এমন কোন প্রতিষ্ঠান থেকে আপনি করতে পারবেন। কিন্তু টেলিটক সংযোগ ব্যতীত অন্য কোন অপারেটের মাধ্যমে ফলাফল পুনঃনিরক্ষণের আবেদন করা যাবে না।
  •  টেলিটক সংযোগে আপনার পর্যাপ্ত পরিমাণ ব্যালেন্স রাখতে হবে। প্রতিটি বিষয়ের জন্য আপনাকে আবেদন ফি বাবদ ১২৫ টাকা করে চার্জ টাকা হবে। এবং যে সকল বিষয়ে পত্র বিশেষ রয়েছে যেমন বাংলা ১ম এবং ২য় পত্র / ইংরেজী ১ম এবং ২য় পত্রের জন্য একটি বিষয়ে আবেদন করলে দুইটি বিষয় বা পত্রের আবেদন ফি ধরে ২৫০ টাকা কাটা হবে। 
  • এরপর আপনার সাথে যোগাযোগের জন্য বাংলাদেশের অনুমোদিত যে কোন অপারেটের সংযোগ নম্বর প্রদান করতে হবে। 

মোবাইলের মাধ্যমে আবেদনের নিয়ম

আপনার মোবাইলের ম্যাসেজ অপশনে গিয়ে লিখতে হবে RSC <space> আপনার বোর্ডের প্রথম তিন অক্ষর  <space>  রোল নম্বর <space> বিষয় কোড 
ধরে নেওয়া যাক, ঢাকা বিভাগের একজন পরীক্ষার্থী পরীক্ষার ফলাফলে পুনঃনিরীক্ষণের আবেদন করবে যার রোল নম্বর 256484  বিয়য় কোড 101
উদাহরণ  হিসেবে দেখানো হল :  RSC  <space> DHA <space> 256484 <space> 101 এরপর 16222 সেন্ড বা পাঠাতে হবে। 
আপনি যদি একাধিক বিষয়ের জন্য আবেদন করতে চান তাহলে আপনাকে প্রতিটি বিষয়ের কোড নম্বরের এরপর (,) কমা বসিয়ে  আবেদন করতে হবে।
 ধরে নেওয়া যাক, ঢাকা বিভাগের একজন পরীক্ষার্থী পরীক্ষার ফলাফলে পুনঃনিরীক্ষণের আবেদন করবে যার রোল নম্বর 256484  বিয়য় কোড 101,102 বাংলা ও ইংরেজী দুইটি পরীক্ষার জন্য আবেনদন করবে ।
উদাহরণ হিসবে দেখানো হল :  RSC  <space> DHA <space> 256484 <space> 101,102 এরপর 16222 সেন্ড বা পাঠাতে হবে। 
প্রতিটি বিষয়ে ও প্রতিটি পত্রের জন্য আবেদন ফি বাবদ চার্জ কাটা হবে ১২৫ টাকা করে। 
এস.এম.এস পাঠানোর ফিরতি এস.এম.এস এ কত টাকা কেটে নেওয়া হবে এবং একটি পিন নম্বর দেওয়া হবে যা আপনাকে পরবর্তীতে সংরক্ষণ করে রাখতে হবে। 
এরপর আবেদনের জন্য আপনার সম্মতি চাওয়া হবে, আপনি যদি রাজি হন তাহলে আপনাকে আবার ম্যাসেজ অপশনে গিয়ে লিখতে হবে :
RSC  <space> Yes  <space> Pin Number <space> Contact Number 
 
ধরে নেওয়া যাক, ফিরতি এস.এম.এস এ আপনার পিন নম্বরটি পেয়েছেন 12345 এবং আপনার মোবাইল নম্বর 017XX-XXXXXX তাহলে আপনি যেভাবে এস.এম.এস পাঠাবেন। 
উদাহরণ হিসবে দেখানো হল :  RSC  <space> Yes  <space> 12345 <space> 017XX-XXXXXX এরপর 16222 সেন্ড বা পাঠাতে হবে। 
 
উপরে উল্লেখিত সম্পূর্ণ্য প্রক্রিয়াটি সঠিকভাবে করার পর আপনাকে Congratulation ম্যাসেজ পাঠানো হবে। এবাবেই আপনি সফলভাবে জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষার ফলাফল পুনঃনিরীক্ষণের আবেদন করতে পারবেন। 

জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষার ফলাফল পুনঃনিরীক্ষণের আবেদন সময়সীমা : ৩১-১২-২০১৭ ইং তারিখ হতে ০৬-০১-২০১৮ তারিখের মধ্যে জেএসি ও জেডিসি পরীক্ষার ফলাফল পুনঃনিরীক্ষণের অাবেদন করা যাবে। তাই দেরি না করে এখুনি করার চেষ্ঠা করুন। আপনার কাছে যদি সংশ্লিষ্ঠ আবেদন করার কোন সুযোগ না থাকে তাহলে নিকটষ্থ যে কোন ইন্টারনেটের দোকানে গিয়ে আবেদনের কাজটি সর্ম্পূণ্য করার চেষ্ঠা করুন। 

আমাদের সাথে যুক্ত হতে চাইলৈ : ফেসবুক পেইজ | | ফেসবুক গ্রুপ

পোষ্ট-টি শেয়ার করে অন্যকে জানার সুযোগ করে দিন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার কমেন্ট লিখুন
আপনার নাম লিখুন