সেরা মিথ্যাবদী হিসেবে খ্যাত হয়েছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প

0
656
বিশ্বের ক্ষমতাধর দেশগুলোর মধ্যে রয়েছেন  মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোলাল্ড ট্রাম্প।  সারাটি বছর চলে গেছে  তার নানা ধরণের কর্মকান্ডের আলোচনা ও সমালোচনার ওপর দিয়ে। কিন্তু সর্বশেষ তিনি পরিচিত হলেন ২০১৭ সালের সেরা মিথ্যাবাদী হিসেবে তাও এমনি একটি সময় যখন বছরের বিদায় ঘন্টা বাজিয়ে দিচ্ছে এমন অবস্থায়।  এমনি এক খবর প্রকাশিত হয়েছে এনবিসি নিউজ জার্নালে, সেখানে প্রকাশ করা হয়েছে তার মুখ থেকে প্রকাশিত সেরা সেরা কিছু মিথ্যা কথার তালিকা। ডোনাল্ড ট্রাম্পের নির্বাচন থেকে শুরু করে বিজয়ী হওয়া পর্যন্ত এই বছর মার্কিন নাগরিকরা ছিল  প্রত্যাশিত-অপ্রত্যাশিত কিছু ঘটনার সাক্ষী। তা সত্ত্বেও খুবই মাতিয়ে ছিল নিবার্চন পূর্ব ও পর সময়টা ।
প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প
মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প
কে জিতবে ? কি হবে মার্কিন নাগরিকদের ভবিষৎত তাই নিয়ে জল্পনা-কল্পনা। কিন্তু সবকিছুকে মিথ্যা পরিণত করে মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে নাম লেখালেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। শুরু হলো মিথ্যার এক অভয়-অরণ্য আর পুরো বছরটা ভালোই উপভোগ করল মার্কিন নাগরিকগণ। নিউজে আরোও প্রকাশিত হয়েছে যে, ডোনাল্ড ট্রাম্প বছর শুরুই করেছেন মিথ্যা কথামালা সাজিয়ে।প্রেসিডেন্ট হওয়ার পর আমেরিকার নাগরিকদের বহু মিথ্যা আশ্বাস ও প্রত্যাশা দিয়েছেন। তিনিই তিনিই প্রথম যে মিথ্যা দাবী করেছেন তা হলো তার নির্বাচন জয়ের পর শপথ অনুষ্ঠানের সময়। তিনি দাবী করেন তার শপথ অনুষ্ঠানে যত মানুষ এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন তার পূর্বে এতো মানুষ কখনো প্রেসিডেন্ট শপথে উপস্থিত ছিলেন না। কথাটি পুরোটাই একটি বিভ্রানিমূলক কথা যা পাগলের পাগলামির সামিল । কেননা তার চেয়েও জনপ্রিয় ছিলেন পূর্ববর্তী সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্টগণ।
এটা ছিল পুরটাই বানোয়াট ও মিথ্যা কথা। তার শপথ অনুষ্ঠানে খুবই স্বাভাবিক মানুষ উপস্থিত ছিলেন।
এনবিসি নিউজ প্রকাশিত তার দ্বিতীয় সবচেয়ে বড় মিথ্যা কথাটি হচ্ছে, কংগ্রেস প্রতিনিধিদের কাছে। ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন যে ২০১৬ সালের নির্বাচনে তার প্রতিদন্দী হিলারি ক্লিনটন তার সাথে নির্বাচনে জয়ী হওয়ার জন্য লাখ লাখ জাল ভোট পেয়েছেন। যা নাকি পুরোটাই সুমিষ্টের মিথ্যা বুলি। ডোনাল্ড ট্রাম্পের এ দাবির প্রেক্ষিতে তার কোন প্রমাণ দেখাতে পারেনি। এমনকি আমেরিকান নির্বাচন কর্তৃপক্ষ তার এই কথাটি একটি মিথ্যা ও ভ্রান্ত কথা বলে জানিয়েছেন।
মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ইউরোপীয় দেশগুলোর পক্ষপাত্তিত্ব করতে গিয়ে তিনি যুদ্ধবিধ্বস্ত ইউরোপিয়োওগামী অভিবাসীদের আশ্রয় সম্পর্কে বিভ্রান্তিমূলক সমালোচনা করেন। যা করতে গিয়ে ডোনাল্ড ট্রাম্প সর্ম্পূণ একটি মিথ্যা নাটক সাজিয়েছিলেন। তিনি গত ফ্রেবুয়ারী মাসে বলেন , আমাদের দেশের সার্বভৌমত্ত ও দেশের মানুষের নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করতে হবে। আজ রাতে জার্মানি ও সুইডেনে যা ঘটেছে তা খুবই অপ্রত্যাশিত ছিল। তার নিব্য নিন্দা জ্ঞাপন করেন তিনি এবং সেই সাথে মার্কিন নাগরিকদের নিরাপত্তার কথার দহায় দিয়ে সবাইকে সর্তক থাকার পরামর্শ দেন নি। কিন্তু পরদিন সুইডেন ট্রাম্পের ঘোষণার পরিপ্রেক্ষিতে  একটি পত্রিকায় নিউজ প্রদান করে যে, ট্রাম্প সুইডেন সম্পর্কে যে মতামত প্রদান করছেন তা সঠিক নয়। গতকাল রাতে সুইডেন এ এমন কোন অাহামরি কিছুই ঘটেনি।
ডোনাল্ড ট্রাম্পের মিথ্যা কথা প্রকাশ করতে গিয়ে এনবিসি নিউজ আরো  জানায় যে, ডোনাল্ড ট্রাম্প দাবী করেন তিনি যখন নির্বাচন পর কিছুদিন তার নিজ বাসভবন ট্রাম টাওয়ারে বসাবস করতে ছিলেন তখন পূর্ববর্তী সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা  তার টেলিফোনে আড়িপেতে তার আলাপচারিতা শুনেছেন। কিন্তু তার এই দাবীও ছিল পুরোটাই ভিত্তীহিন।তার দাবীর প্রেক্ষিতে মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা এ নিয়ে তদন্ত করে জানিয়েছে এরকম কোন কিছুই তারা তদন্তে পাওয়া যায়নি।  যেহুতু তিনি আচমকা মার্কিন নির্বাচনে জয়ী হতে সক্ষম হয়েছিলেন। তাই তার নজর যেন সাবেক জনপ্রিয় প্রেসিডেন্ড বারাক ওবামার কাছে নত না হয়ে যায় । তাই তিনি এই মিথ্যে নাটক সাজিয়েছিলেন। কিন্তু তার সকল মিথ্যা ধারণা ভূল প্রমাণিত হয়ে বারাক ওবাকা মার্কিনিদের কাছ থেকে এক পরশ বিদায় পেয়েছিলেন । তখন ভাবী প্রেসিডেন্ট ডোলান্ড ট্রাম্প ছিল এক মুর্ত পুতুল। কারণ বারক ওবামার মত একটি জনপ্রিয়,সাহসী,কর্মময় ধারক প্রেসিডেন্টকে কখনোই মার্কিন নাগরিকরা ভুলবেনা।

 এনবিসি নিউজ সর্বশেষে যে মিথ্যা কথাটি প্রকাশ করছে তা হলো ডোনাল্ড ট্রাম্প ও রাশিয়ার মধ্যকার গোপন সম্পর্ক । ডোনাল্ড ট্রাম্প ও রাশিয়া মধ্যে একটি গোপন সম্পর্ক রয়েছে। যা কিনা নির্বাচন পর তার উৎসাহেই তৈরি হয়েছে। কিন্তু তিনি এই দাবীর প্রক্ষিতে তিনি বলেছেন এটা সর্ম্পূণ্য বানায়াট ও ভুল কথা। কিন্তু পরবর্তীতে মার্কিন নিরাপত্তা তদন্তে এটি স্পষ্ট যে ডোনাল্ড ট্রাম্প ও রাশিয়ার মধ্যকার গোপন সম্পর্ক রয়েছে।

আমাদের সাথে যুক্ত হতে চাইলৈ : ফেসবুক পেইজ | | ফেসবুক গ্রুপ
উপরোক্ত তথ্য সম্পর্কিত কোন মতামত জানাতে চাইলে কমেন্ট করুন এবং শেয়ার করে অন্যকে জানার সুযোগ করে দিন

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার কমেন্ট লিখুন
আপনার নাম লিখুন